যৌতুক না পেয়ে বিয়েবাড়িতে ভাঙচুর, বিয়ের আসরেই পাত্রীকে লাথি

দুই পরিবারের সম্মতিতে বিয়ের জন্য গতকাল ১ ডিসেম্বর রবিবারকে বেছে নেওয়া হয়েছিল। সেই মতো শুরু হয় আয়োজন। গতকাল রবিবার সকাল থেকেই জমজমাট কনের বাড়ি। সকাল থেকেই লোকের সমাগম। চলছিল রান্নাবান্না। সেজে উঠেছিল বিয়ের ম`ণ্ডপ। সময় মতো বিয়ে বাড়িতে পৌঁছে যায় পা`ত্রপ`ক্ষ।কি`ন্তু আচমকাই ছ`ন্দপতন। হ`ঠাৎই চি`ৎকার শু`রু করে পা`ত্রপ`ক্ষ। পা`ত্রীপ`ক্ষের কোনো কথাই শু`নতে রাজি হননি তারা। রাগের বশে বিয়েবাড়ির চেয়ার টেবিল ভা`ঙ`চুর শু`রু করে পা`ত্রপ`ক্ষ। লাথি মেরে ফেলে দেওয়া হয় পা`ত্রীকে। মারধর করা হয় পরিবারের অন্যান্য সদস্য`দেরও। ঘ`টনাটি ঘটেছে ভা`রতের দ`ক্ষিণ চব্বিশ পরগনার সোনারপুরে।এই ঘটনার প্র`তিবাদ করে কনের বাড়ির সদস্যরা। এরপরই কা`র্যত হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়ে দু’পক্ষ। সুযোগ বুঝে পাত্রপক্ষকে একটি ঘরে আটকে ফেলে ক`নেপ`ক্ষ। খবর দেওয়া হয় ক্যা`নিং থানায়। দী`র্ঘক্ষ`ণ পর স্বাভাবিক হয় পরি`স্থি`তি। গভীর রাতে মু`ক্ত হয়ে বাড়ি ফেরে পা`ত্রপক্ষ`। কি`ন্তু কেন এই ঘ`টনা ঘ`টল বিয়ে বাড়িতে?এ ব্যাপারে ভারতের স্থা`নীয় সংবাদমাধ্যম সংবাদ প্রতিদিনে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে জানা যায়, পা`ত্রীপ`ক্ষের কাছে নগদ ২৫ হাজার টাকা দাবি করেছিল পা`ত্রপ`ক্ষ। কি`ন্তু কোনো কারণে সেই টাকা দিতে পারেনি তারা। সেই স`ঙ্গে বিয়েবাড়ির খাওয়া-দাওয়ার আয়োজন নিয়েও কিছু সম`স্যা দেখা দিয়েছিল। আর এতেই ক্ষো`ভে ফু`টতে শু`রু করে পা`ত্রপ`ক্ষ। এই নিয়েই শু`রু হয় অশা`ন্তি।

গত ১ ডিসেম্বর থেকে পর্দা উঠেছে ১৩তম সাউথ এশিয়ান (এসএ) গেমসের। এসএ গেমসে অংশ নিতে বর্তমানে নেপালে অবস্থান করছে বাংলাদেশ নারী দল। এসএ গেমসের এবারের আসরে বাংলাদেশকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন সালমা খাতুন।আগামীকাল ৩ ডিসেম্বর শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে এসএ গেমস মিশন শুরু করবে বাংলাদেশ নারী দল। বাংলাদেশ সময় সকাল ১১টায় শুরু হবে ম্যাচটি।বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কার পাশাপাশি এই গ্রুপে আছে নেপাল ও মালদ্বীপ। কাল শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে মাঠে নামবে বাংলাদেশ নারী দল। এরপর আগামী ৪ ডিসেম্বর নেপালের মুখোমুখি হবে সালমারা। গ্রুপপর্বের শেষ ম্যাচে ৫ ডিসেম্বর মালদ্বীপের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ।বাংলাদেশ নারী দল: সালমা খাতুন (অধিনায়ক), নিগার সুলতানা, জাহানারা আলম, আয়েশা রহমান, ফারজানা হক, মুর্শিদা খাতুন, সানজিদা ইসলাম, শোবহানা মোস্তারি, ফাহিমা খাতুন, শামিমা সুলতানা, নাহিদা আক্তার, খাদিজ তুল কুবরা, রিতু মনি, পূজা চক্রবর্তী ও রাবেয়া।স্ট্যান্ড বাই: মিমতা হেনা হাসনাত, ফারিহা ইসলাম তৃষ্ণা, সুরাইয়া আজমিন, পান্না ঘোষ ও শায়লা শারমিন।

Author: admin

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *